China ginger 500gm

৳ 70.00

রোজ খান আদা, নিজের মধ্যে লক্ষ্য করুন পরিবর্তন

কমবেশি আমরা সবাই জানি ফল এবং শাকসবজি আমাদের জন্য কতটা উপকারী । তাই স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য আমাদের আদা খাবার খাওয়া উচিত। এর স্বাদও যেমন ভালো, তেমন উপকারের দিক থেকে আদা সবাইকে পেছনে ফেলে দিতে পারে। সময়টা আমাদের জন্য এখন খারাপ যাচ্ছে। এবার উচিৎ ভেষজ ওষুধের দিকে নজর দেয়া। ‘আদা সকল রোগ নিরাময়ে দাদা’। রোজ একটু করে আদা খেলে আপনার অনেক শারীরিক সমস্যাই মিটে যাবে। আদায় রয়েছে পটাশিয়াম, আয়রণ, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, সোডিয়াম, জিংক, ম্যাঙ্গানিজ, ভিটামিন এ, বি৬, ই ও সি এবং অ্যান্টি–ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট ও অ্যান্টি–ইনফ্লামেটরি এজেন্ট বিদ্যমান। যার কারণে সব বয়সী মানুষ আদা খেতে পারেন, বিশেষ করে শিশুদের জন্য আদা–মধু–জল সুস্থ দেহ ও সতেজ মনের জন্য খুবই কার্যকর।

উপকারিতা
· হৃদ্‌রোগ:  আদা স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। এটি কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। যা হার্ট সম্পর্কিত বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি হ্রাস করে। আদাতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম থাকে। যা হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য ভাল।

·ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ:  আদা শরীরের চিনির মাত্রা হ্রাস করে। এটি শরীরে ইনসুলিন তৈরিতে সহায়তা করে যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে।

·  হজম: 
আদা হজম ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। রোজ একটু করে আদা খেলে কিছুদিনের মধ্যেই আপনার হজম ক্ষমতা অনেক উন্নত হয়ে যাবে।

· ক্যানসার প্রতিরোধ: ক্যানসার প্রতিরোধেও আদার উপকারিতা প্রমাণি। শরীরের ক্যানসার সেলগুলিকে নিষ্ক্রিয় করতে সাহায্য করে আদা। বিশেষ করে ওভারিয়ান ক্যানসার সেল ধ্বংস করার ক্ষমতা রয়েছে আদার মধ্যে। ক্যানসার প্রতিরোধেও আদার উপকারিতা প্রমাণি। শরীরের ক্যানসার সেলগুলিকে নিষ্ক্রিয় করতে সাহায্য করে আদা। বিশেষ করে ওভারিয়ান ক্যানসার সেল ধ্বংস করার ক্ষমতা রয়েছে আদার মধ্যে।

· গ্যাস-অম্বল: 
নানা কারণে গ্যাস-অম্বলের সমস্যা আমাদের লেগেই থাকে। কারোর কারোর তো গ্যাস-অম্বলের সমস্যা পিছু ছাড়ে না। এই সমস্যায় আপনার উপকারী বন্ধু হতে পারে আদা। প্রতিদিন একটু করে আদা খেলে গ্যাস-অম্বলের সমস্যার উপকার পাবেন।

· মাইগ্রেনে:  কিছু বিশেষজ্ঞ বিশ্বাস করেন। মাইগ্রেনের মাথা ব্যথা কমাতে আদা চা খুব উপকারী। এতে উপস্থিত ভিটামিন এবং পুষ্টি মাইগ্রেন স্বস্তি দেয়।

· ঠান্ডা এবং তাপ এড়ানো:  আদা দিয়ে সবাই পরিচিত। এটি ঠান্ডা থেকে রক্ষা করতে খুব উপকারী বলে প্রমাণিত হয়। ছোট বাচ্চারা যদি শীত অনুভব করে তবে তারা শীত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে আদা ব্যবহার করে। এটিতে অ্যান্টি-ভাইরাল, অ্যান্টি-ফাঙ্গাল গুন রয়েছে।
· কাশি কমায়: আদা একটি প্রাকৃতিক বেদনানাশক ব্যথা রিলাইভার আছে। যা গলার ব্যথা দূর করতে সহায়তা করে। এটি কাশি হ্রাস করে।

· মাসিক ব্যথা থেকে মুক্তি:  মেয়েদের মাসিকের সময় ব্যথা কমাতে আদা চা ব্যবহার করা উচিত। আদাতে রয়েছে অনেক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা ব্যথা উপশম করতে সহায়ক।
· বাতের ব্যথায়:  যাদের বাতজনিত রোগ রয়েছে। তাদের নিয়মিত আদা খাওয়া উচিত। এটিতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে। যা হাড়কে মজবুত করে। বাতজনিত রোগ দূর করে।

অপকারিতা
· গর্ভবতীদের জন্য ভালো নয়। গবেষকদের মতে, আদার ফলে গর্ভপাত ও বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।
· অনেকের আদা খেলে অ্যালার্জির কারণে জিভে ফোলাভাব এবং শরীরে চুলকানি হয়। তাদের আদা খাওয়া বন্ধ করা উচিত। ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করা উচিত।
· আদা খাওয়ার কারণে পেটে ব্যথা, ডায়রিয়ার সমস্যা হতে পারে। অতএব, যে কোনও কিছু পর্যাপ্ত পরিমাণে খাওয়া উচিত।
·  আদা চা পাঁচ কাপের বেশি খেলে মাথাব্যথা মাইগ্রেন, অনিদ্রার মতো সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। সুতরাং এক পর্যাপ্ত পরিমাণে পান করা উচিত।

Out of stock

SKU: 5837 Category:
Share With Your Friends